সাহিত্য ডেস্কঃ করোনার কারণে দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর আবারও সৃজনের স্পন্দন জেগেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) কেন্দ্রীয় মিলনায়তনের নাট্যমঞ্চে। গত বুধবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক সংগঠন চোখ ফিল্ম সোসাইটির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে সেখানে লেগেছিল প্রাণের ছোঁয়া। নাট্যমঞ্চে এ সময় অনুষ্ঠিত হয় ‘বিনন্দের কিচ্ছা’, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‘বিদ্রোহী’ ও টিএস এলিয়টের ‘দ্য ওয়েস্ট ল্যান্ডে’র শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষে পালা করে আবৃত্তি করা হয় এ কবিতা দুটি।

প্রায় শতবর্ষ পরে অন্ধকার মিলনায়তনে কাজী নজরুলের ‘বিদ্রোহী’ এবং টিএস এলিয়টের ‘দ্য ওয়েস্ট ল্যান্ড’ কবিতা দুটি শুনতে আসা নীরব দর্শকরা কালের এক অনন্য ক্ষণের সাক্ষী হয় রইলেন। মঞ্চে আলো জ্বলে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে শতবর্ষ পরেও বিদ্রোহী ভঙ্গিতে নজরুলের স্বরে আবৃত্তিকার বলে ওঠেন, ‘বল বীর-/ বল উন্নত মম শির!/ শির নেহারি’ আমারি নত-শির ওই শিখর হিমাদ্রীর!’ অন্যপাশে পালা করে আবৃত্তি করা হয় বিংশ শতাব্দীর অনন্য কবি টিএস এলিয়টের ‘দ্য ওয়েস্ট ল্যান্ড’ কবিতা।

মঞ্চে কাজী নজরুল ইসলামের চরিত্র ও ‘বিদ্রোহী’ কবিতা আবৃত্তি করেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য, নন্দিত আবৃত্তিশিল্পী “সৈয়দ সাইমুম আনজুম ইভান “, সিলেটের আবৃত্তিশিল্পী জ্যোতি এবং বাংলা বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস মুন্নি। অন্যদিকে, এলিয়টের দ্য ওয়েস্ট ল্যান্ড আবৃত্তি করেন চ্যারিটি ট্রাস্টির লেখক এবং সাবেক চ্যারিটি চিফ এক্সিকিউটিভ মাইক শেরিফ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী তামিরা মিজান চৌধুরী।

চোখ ফিল্ম সোসাইটির ২৫ বছরপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের হাইকমিশনের সিলেট অফিসের সহকারী হাইকমিশনার শ্রী নিরাজ কুমার জেইসাওয়াল, চোখ ফিল্মের প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. হিমাদ্রি শেখর রায় এবং সংগঠনের সাবেক ও বর্তমান সদস্যরা।